দুপুর ১২:৩৮ | মঙ্গলবার | ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সাবেক পুলিশ পরিদর্শকের ছেলেকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে দুই এএসআই ক্লোজ

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থানার দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে অনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে গত ৪ আগষ্ট ক্লোজ করা হয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত ২ আগষ্ট বিকালে বারাশিয়া নদীর পাড় থেকে বোয়ালমারী উপজেলার শেখপুর গ্রামের সাবেক পুলিশ পরিদর্শকের অনার্স পড়ুয়া ছেলে আরাফাতকে আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশের এএসআই ফারুক ইয়াবা আছে বলে চ্যালেঞ্জ করে। তল্লাশি করে তার কাছে কোন মাদক না পেয়ে তাকে ছেড়ে দেয়। এ সময় আরফাতের সাথে ওই পুলিশ কর্মকর্তার কথা কাটা কাটি হয়। পরে আরাফাত হেটে সামনে কয়েক গজ এগোলে পিছন থেকে আবার ওই এএসআই ফারুক এসে আরাফাতের পিছনে ইয়াবা ট্যাবলেট ফেলে দিয়ে তাকে ইয়াবা ব্যবসায়ি বলে আটক করে।

স্থানীয় লোকজন পুলিশের ইয়াবা ফেলে নাটক সাজিয়ে আরাফাতকে আটকের বিষয়টি দেখে ফেলে। পরে স্থানীয় লোকজনের চাপের মুখে তাকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়।

আরাফাতের বাবা অবঃ প্রাপ্ত পুলিশের পরিদর্শক আঃ হাই ভূইয়া ঘটনা শুনে পরের দিন পুলিশ সুপার ফরিদপুর বরাবর আবেদন করেন পরে গত ৪ জুলাই থানার এএসআই ফারুক ও তার সাথে থাকা এএসআই রশিদকে ফরিদপুর পুলিশ লাইনে ক্লোজ করে।

মোবাইল ফোনে আলফাডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রিজাউল করিমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ওই দুই এএসআইকে ক্লোজের সত্যতা স্বীকার করেন।

তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে জানা গেছে।

তবে দীর্ঘ দিন ধরে এএসআই ফারুক স্কুল কলেজের নিরীহ ছেলেদের পকেটে গাঁজা, ইয়াবা ঢুকিয়ে দিয়ে অনেককেই হয়রানি করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে কাউকে ছেড়ে দিয়েছে আবার কাউকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে ১৫১/১৫৪ ধারায় আদালতে চালান করেছে বলেও একাধিক অভিযোগ রয়েছে। এলাকার সুশিল সমাজ আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশের এ জাতীয় কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে তাদের চাকুরিচ্যুত করে শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহন করতে পুলিশের উদ্ধোত্নন কর্মকর্তাদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে এএসআই ফারুকের মুঠো (০১৭১২২২৩৮৪৫) ফোনে ফোন করলে তার ফোন বাজলেও রিসিভ করেনি।

Views All Time
Views All Time
298
Views Today
Views Today
1

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» নায়েবুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত

» নায়েবুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত

» আলফাডাঙ্গায় অবৈধ ট্রলি বন্ধের দাবীতে মানববন্ধনন

» গোপালগঞ্জে বাসচাপায় শিশু নিহত

» বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাই চলার পাথেয় : আবীর আহাদ

» কাশিয়ানীতে মোটরসাইকেল-মাইক্রো সংঘর্ষে নিহত ১

» টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

» গোপালগঞ্জে মোটরসাইকেল চাপায় কৃষক নিহত

» বীর মুক্তিযোদ্ধা ও দেশবাসীর প্রতি ঈদের শুভেচ্ছা:আবীর আহাদ

» আজ বিশ্ববিখ্যাত চিত্রশিল্পী এস.এম.সুলতানের জন্মদিন

» ভাষা সৈনিক শমসের উদ্দিনের দাফন সম্পন্ন

» চলে গেলেন ভাষা সৈনিক শমসের উদ্দিন

» গোপালগঞ্জে গাঁজাসহ পিতা-পুত্র গ্রেফতার

» আজ মহীয়সী নারী বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৯ তম জন্মবার্ষিকী

» সাবেক পুলিশ পরিদর্শকের ছেলেকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে দুই এএসআই ক্লোজ

পরিচালনা পর্ষদ

প্রধান উপদেষ্টা : মোঃ গোলাম মোস্তফা

প্রধান সম্পাদক : নিজামুল আলম মোরাদ

সম্পাদক & প্রকাশক : পরশ উজির

পরিচালনা পর্ষদ

অঞ্চলিক অফিস ও সম্পাদকীয় কার্যালয় : প্রেস ক্লাব,
কাশিয়ানী, গোপালগঞ্জ, ঢাকা, বাংলাদেশ
নিউজ রুম : kashiani09@gmail.com 01911079050

Design & Devaloped BY Creation IT BD Limited

,

সাবেক পুলিশ পরিদর্শকের ছেলেকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে দুই এএসআই ক্লোজ

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থানার দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে অনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে গত ৪ আগষ্ট ক্লোজ করা হয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত ২ আগষ্ট বিকালে বারাশিয়া নদীর পাড় থেকে বোয়ালমারী উপজেলার শেখপুর গ্রামের সাবেক পুলিশ পরিদর্শকের অনার্স পড়ুয়া ছেলে আরাফাতকে আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশের এএসআই ফারুক ইয়াবা আছে বলে চ্যালেঞ্জ করে। তল্লাশি করে তার কাছে কোন মাদক না পেয়ে তাকে ছেড়ে দেয়। এ সময় আরফাতের সাথে ওই পুলিশ কর্মকর্তার কথা কাটা কাটি হয়। পরে আরাফাত হেটে সামনে কয়েক গজ এগোলে পিছন থেকে আবার ওই এএসআই ফারুক এসে আরাফাতের পিছনে ইয়াবা ট্যাবলেট ফেলে দিয়ে তাকে ইয়াবা ব্যবসায়ি বলে আটক করে।

স্থানীয় লোকজন পুলিশের ইয়াবা ফেলে নাটক সাজিয়ে আরাফাতকে আটকের বিষয়টি দেখে ফেলে। পরে স্থানীয় লোকজনের চাপের মুখে তাকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়।

আরাফাতের বাবা অবঃ প্রাপ্ত পুলিশের পরিদর্শক আঃ হাই ভূইয়া ঘটনা শুনে পরের দিন পুলিশ সুপার ফরিদপুর বরাবর আবেদন করেন পরে গত ৪ জুলাই থানার এএসআই ফারুক ও তার সাথে থাকা এএসআই রশিদকে ফরিদপুর পুলিশ লাইনে ক্লোজ করে।

মোবাইল ফোনে আলফাডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রিজাউল করিমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ওই দুই এএসআইকে ক্লোজের সত্যতা স্বীকার করেন।

তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে জানা গেছে।

তবে দীর্ঘ দিন ধরে এএসআই ফারুক স্কুল কলেজের নিরীহ ছেলেদের পকেটে গাঁজা, ইয়াবা ঢুকিয়ে দিয়ে অনেককেই হয়রানি করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে কাউকে ছেড়ে দিয়েছে আবার কাউকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে ১৫১/১৫৪ ধারায় আদালতে চালান করেছে বলেও একাধিক অভিযোগ রয়েছে। এলাকার সুশিল সমাজ আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশের এ জাতীয় কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে তাদের চাকুরিচ্যুত করে শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহন করতে পুলিশের উদ্ধোত্নন কর্মকর্তাদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে এএসআই ফারুকের মুঠো (০১৭১২২২৩৮৪৫) ফোনে ফোন করলে তার ফোন বাজলেও রিসিভ করেনি।

Views All Time
Views All Time
298
Views Today
Views Today
1

সর্বশেষ আপডেট



এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



পরিচালনা পর্ষদ

প্রধান উপদেষ্টা : মোঃ গোলাম মোস্তফা

প্রধান সম্পাদক : নিজামুল আলম মোরাদ

সম্পাদক & প্রকাশক : পরশ উজির

পরিচালনা পর্ষদ

অঞ্চলিক অফিস ও সম্পাদকীয় কার্যালয় : প্রেস ক্লাব,
কাশিয়ানী, গোপালগঞ্জ, ঢাকা, বাংলাদেশ
নিউজ রুম : kashiani09@gmail.com 01911079050

Design & Devaloped BY Creation IT BD Limited